শিল্প ও সংস্কৃতি

আবারও তারুণ্যকে মাতাতে আসছে জয় বাংলা কনসার্ট

জয় বাংলা কনসার্ট নিয়ন_আলোয়_Neon_Aloy

১৯৭১ সালের ৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর অমিয় বজ্রকন্ঠে ভেসে আসা “এবারের সংগ্রাম আমাদের মুক্তির সংগ্রাম, এবারের সংগ্রাম স্বাধীনতার সংগ্রাম” শব্দগুলো দেয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়া বাঙালিকে দেখায় নবসূর্যের আহ্বান। বাঙালি মাত্র ৯ মাসেই অর্জন করে স্বাধীনতা। স্বাধীনতার কয়েকযুগ পরেও সেই বজ্রকন্ঠনিসৃত শব্দের ঝাঁঝ বিন্দুমাত্র কমে নি। বরং সেই বজ্রকন্ঠ বাঙালিকে বারংবার দেয় উজ্জীবিত হয়ে দাঁড়ানোর অনুপ্রেরণা। ইয়ং বাংলা আত্মপ্রকাশের পর সেই কালজয়ী মূহূর্তকে স্মরণ করে বিগত ৫ বছর যাবৎ আয়োজন করে আসছে “জয় বাংলা কনসার্ট”

বাংলাদেশের সর্বস্তরের যুবকদের একত্রিত করে তাদের জাতীয় উন্নয়ন তথা রূপকল্প ২০২১-এ অন্তর্ভুক্ত করার জন্য সেন্টার ফর রিসার্স এন্ড ইনিশিয়েটিভের (সিআরআই) উদ্যোগে ‘ইয়ং বাংলা’ প্লাটফর্ম গড়ে তোলা হয়। এ প্রজন্মের তরুণদের সাথে নিয়ে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উদযাপনের উদ্যোগ হিসেবে ‘ইয়ং বাংলা’ রাজধানী ঢাকার আর্মি স্টেডিয়ামে আয়োজন করে আসছে জয় বাংলা কনসার্ট। ২০১৫ সালে শুরু হওয়া এই কনসার্টের ধারা অব্যাহত রেখে এবারো ৭ই মার্চ আর্মি স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে জয় বাংলা কনসার্টের পঞ্চম আসর। ইয়ং বাংলার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গেছে রেজিস্ট্রেশন।

জয় বাংলা কনসার্ট নিয়ন_আলোয়_Neon_Aloy

২০১৫ তে অনুষ্ঠিত হওয়া প্রথম আসরে মঞ্চ মাতিয়েছিলো শূণ্য, আর্বোভাইরাস, নেমেসিস, শিরোনামহীন, ক্রিপটিক ফেইট, অর্নব এন্ড ফ্রেন্ডস, আর্টসেল এবং ওয়ারফেইজ

দ্বিতীয় আসরেও  লাইন-আপ প্রায় একই থাকে। শুধু আর্টসেল সেই বার অংশগ্রহন করেনি, তার বদলে জয় বাংলা কনসার্টে প্রথমবারের মতো অংশগ্রহন করে ব্যান্ড “লালন”

জয় বাংলা কনসার্ট নিয়ন_আলোয়_Neon_Aloy

জয় বাংলা কনসার্ট ২০১৭, তার আগের বছর ২০১৬ সালের লাইন আপই অক্ষুণ্ণ রেখে অনুষ্ঠিত হয়। সে বছর আর্মি স্টেডিয়ামে উপস্থিতি ছিলো প্রায় ৬০,০০০ হাজারের মতো মানুষ!

জয় বাংলা কনসার্ট নিয়ন_আলোয়_Neon_Aloy

২০১৮ তে অনুষ্ঠিত জয় বাংলা কনসার্টে প্রথমবারের মতো মঞ্চ কাপায় “পাওয়ারসার্জ”। সাথে দু বছর পর আবারো জয় বাংলা কন্সার্টের মঞ্চে ফিরে আসে আর্টসেল৷ প্রথমবারের মতো মঞ্চে উঠে “চিরকুট“। সাথে ছিলো শূণ্য, নেমেসিস, আর্বোভাইরাস, লালন, ক্রিপটিক ফেইট।

২০১৮ সালে প্রথম বারের মতো ঢাকার বাইরে “রোড টু সেভেন্থ মার্চ” নামে অনুষ্ঠিত হয় জয় বাংলা কনসার্ট। সিলেটের আবুল মাল আব্দুল মুহিত কমপ্লেক্স এবং খুলনার সার্কিট হাউজে অনুষ্ঠিত প্রোগ্রাম দুটিও ছিলো প্রচুর সাড়াজাগানিয়া।

জয় বাংলা কনসার্ট নিয়ন_আলোয়_Neon_Aloy

আগের আসরগুলোর মত এবারও জয় বাংলা কনসার্টের এবারের আসরে মঞ্চ কাঁপাবে চিরকুট, শূণ্য, লালন, নেমেসিস, আর্বোভাইরাস, ক্রিপটিক ফেইট এবং আর্টসেলের মতো বাংলাদেশের নামকরা সব ব্যান্ডদল। সাথে প্রথম চমক হিসাবে থাকছে চট্টগ্রামের জনপ্রিয় ব্যান্ড বে অব বেঙ্গল। প্রথমবারের মতো ব্যান্ডটি পারফর্ম করার সুযোগ পাচ্ছে জয় বাংলা কনসার্টে।

জয় বাংলা কনসার্ট নিয়ন_আলোয়_Neon_Aloy

প্রত্যেকটা ব্যান্ডই তাদের অফিশিয়াল ফ্যানপেজের মাধ্যমে বিগত বছরগুলোর মতো পাঠিয়েছে ভিডিওবার্তা। আর সেই বার্তাগুলো থেকেই জানা যাচ্ছে আর্টসেলের লাইন-আপে বেশ রদবদলের পরও এবার জয় বাংলা কনসার্টে একসাথে পাওয়া যাবে সাজু-সেজান-লিংকন জুটিকে, সাথে লিড গীটারে থাকছেন আর্টসেলে সদ্য যোগ দেওয়া কাজি ফয়সাল আহমেদ। নিঃসন্দেহে এটি আর্টসেলপ্রেমীদের জন্য একটি আনন্দের সংবাদ।

১.৩০ থেকেই খুলে দেয়া হবে আর্মি স্টেডিয়ামের প্রবেশদ্বার। বরাবরের মতো এবারো বিনামূল্যে টিকিট পাওয়া যাচ্ছে রেজিষ্ট্রেশনের মাধ্যমে। গত ১ মার্চ থেকে ইয়ং বাংলার অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে শুরু হয়ে গেছে রেজিস্ট্রেশান। মুক্তিযুদ্ধের সময় হাতিয়ারের মতো রসদ হিসেবে কাজ করেছিলো স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্র থেকে প্রচারিত গানগুলো, যা বারংবার  শাণিত করেছে মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রেরণা। ৮ টি ব্যান্ড স্বাধীন বাংলা বেতারের গান পরিবেশনের পাশাপাশি পরিবেশন করবে তাদের নিজেদের গানগুলোও।

বাংলাদেশের সব নামীদামী ব্যান্ডদের নিয়ে আয়োজন করা “জয় বাংলা কনসার্ট” বাংলাদেশের সব থেকে বড় রক সংগীতের মিলনমেলা। গড়ে প্রায় ৪০,০০০ তরুণ-তরুণীদের উপস্থিতি এবং ১ লক্ষেরও বেশী মানুষের কাছে পৌঁছে অনলাইন মিডিয়ায় সরাসরি সম্প্রচার জয় বাংলা কনসার্টে যোগ করে এক অনন্য মাত্রা। এটি যেমন একদিকে স্বাধীনতা চেতনায় বিশ্বাসী তরুণদের মিলনমেলা তেমনি বাংলাদেশের রক মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির জন্যও অপার সম্ভাবনাময় দুয়ার।

লেখকঃ সুদীপ্ত ধর দীপ্ত

Most Popular

To Top