নাগরিক কথা

“হাইসাম আবু সুলতান কি বেঁচে আছে?”

হাইসাম নিয়ন আলোয় neon aloy

যদি আপনাকে জিজ্ঞেস করা হয়-“আপনার জীবনের লক্ষ্য কি?”-আমি জানি এর উত্তরে একেকজন একেক কথা বলবেন। তবে যে যাই হতে চান না কেন, মূল টার্গেট কিন্তু ভালো থাকা, শান্তিতে থাকা, শান্তিতে রাতের ঘুমটা দিতে পারা….

হাইসাম আবু সুলতান, প্যালেস্টাইনের এক বোকাসোকা টাইপ আবেগী ছেলে। নিজের দেশ ছেড়ে বাংলাদেশে এসেছে ডাক্তারি শেখার জন্য, ২০০৪-০৫ সেশনে ভর্তি হলো সিলেট মেডিকেল কলেজে। তার খুব তাড়াহুড়ো, যাতে সে দ্রুত ডাক্তার হতে পারে।দ্রুত ডাক্তার হতে চাইলেও তার জীবনের লক্ষ্য কিন্তু আমাদের মত না।

বাঙালি বন্ধুরা মাঝে মাঝে টিটকারি মারেঃ

“আরে ঐ হাইসাম, এত তাড়াহুড়া করস কেন? আস্তে ধীরে ডাক্তার হ। তোর দেশের যে অবস্থা, গেলেই তো মারা পড়বি…”

দেশের কথা বলাতে আবু হাইসাম আরো আবেগী হয়, বুক সটান করে দৃঢ়ভাবে বলেঃ’ দেশের জন্যই তো তাড়াতাড়ি ডাক্তার হতে চাই। ইজরায়েলীরা আমাদের সবাইকে আস্তে আস্তে মেরে ফেলতেছে। ওদের চিকিৎসা দেয়ার চিকিৎসকও এখন আর তেমন অবশিষ্ট নাই। আমারে দেশে ফেরত গিয়া আহত ভাইবোনদের চিকিৎসা দিতে হইব, আমার দিকে আমার দেশের মানুষ চেয়ে আছে। আমারে তাড়াতাড়ি ডাক্তার হতে হইব, তাড়াতাড়ি…’

কি এক অদ্ভুত পৃথিবীতেই না বসবাস করি! পৃথিবীর এক প্রান্তে আমরা যখন আসন্ন সেহেরী কিংবা ইফতারীতে কোন রেস্টুরেন্টে গিয়ে কোন প্ল্যাটারটা খাবো সেটা নিয়ে ইনডিসিশনে ভুগছি, পৃথিবীর আরেক প্রান্তে হাইসাম আবু সুলতানরা তখন তাদের অস্তিত্ব রক্ষার্থে লড়ে যাচ্ছে….

পৃথিবীর এক প্রান্তে আমরা যখন আমাদের পরিবারকে নিয়ে নিঃশঙ্কচিত্তে রাতে ঘুমোতে যাচ্ছি, আরেক প্রান্তে চিকিৎসক হাইসাম তখন তার রক্তমাখা দেহকে অগ্রাহ্য করে তার আহত পরিজনকে স্ট্রেচারে করে হাসপাতালে নিয়ে তাদের চিকিৎসা সেবাকে নিশ্চিত করছে….

[বি.দ্র.-আজকে বিবিসি’র অনলাইনের খবরঃ “ইসরায়েলী হামলায় ৫২ জন ফিলিস্তিনী মৃত, ২০০০ আহত”।

হাইসাম আবু সুলতান কি বেঁচে আছে? আমি জানি না। তবে ছেলেটার বেঁচে থাকাটা খুব প্রয়োজন…..]

এডিটরস নোটঃ ফিচারড ইমেজ হিসেবে ব্যবহৃত ছবিটি প্রতীকী। নাগরিক কথা সেকশনে প্রকাশিত এই লেখাটিতে লেখক তার নিজস্ব অভিজ্ঞতার আলোকে তার অভিমত প্রকাশ করেছেন। নিয়ন আলোয় শুধুমাত্র লেখকের মতপ্রকাশের একটি উন্মুক্ত প্ল্যাটফরমের ভূমিকা পালন করেছে। কোন প্রতিষ্ঠান কিংবা ব্যক্তির সম্মানহানি এই লেখার উদ্দেশ্য নয়। আপনার আশেপাশে ঘটে চলা কোন অসঙ্গতির কথা তুলে ধরতে চান সবার কাছে? আমাদের ইমেইল করুন neonaloymag@gmail.com অ্যাড্রেসে।

Most Popular

To Top