ফ্লাডলাইট

“রানা ভাই, আপনি জানেন কি?”

"রানা ভাই, আপনি জানেন কি?"

প্রিয় রানা ভাই,

সালাম নিবেন। ভালোই তো আছেন তাই না? বাঘেদের দেখেন? খুব গর্ববোধ করেন তাই না? করাটা স্বাভাবিক! আপনার সেই পাগলাটে ভাই টা, ম্যাশকে দেখেন না? কিভাবে পুরো দলটা কে আগলে রাখে? ভাইয়া সাকিবকে দেখেন? সে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার এখন! দাপটের সাথে পুরো বিশ্বের সামনে বাংলাদেশেকে রিপ্রেজেন্ট করে।

ভাইয়া জানেন ওই দিন যদি কোনো কারণে বাইকটা নিয়ে না বের হতেন আপনিও থাকতেন এদের সাথে।

ম্যাশ ভাই একা আর কত সামলাবে এই দলটাকে। আপনিও যে ম্যাশ ভাইয়ের অংশ। দুই ভাই একসাথে মিলে দাপিয়ে বেড়াতেন ক্রিকেট অঙ্গনে। সাকিব বেচারা অলরাউন্ডার হিসেবে খুব একা পড়ে যায় মাঝে মাঝে। এই যে দেখেন ইনজুরিতে পড়ার পর থেকে কি হাল আমাদের। আপনি থাকলে এসব হতোই না! আপনার অবর্তমানে সাকিব ভাই বা সাকিব ভাইয়ের অবর্তমানে আপনি অথবা দুইজন একসাথে দলের হাল ধরতেন।

ভাইয়া জানেন আপনি চলে যাবার পর সেইদিন পুরো বিধ্বস্ত ছিলো বাংলাদেশ দল। বিশ্বকাপের জন্য গিয়েছিলো তারা। কিন্তু আপনার মৃত্যুতে হয়তো কয়েক মূহুর্তের জন্য স্তব্ধ হয়ে গিয়েছিলো সবাই। স্থান কাল বিবেচনা না করেই বাচ্চাদের মতো কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে ছিলো বাঘগুলো। আর আপনার পাগল ভাইটা? কেঁদেছেন তবে সবার আড়ালে। জানেনই তো সে নিজের কষ্টগুলো সবার সামনে প্রকাশ করতে পাড়ে না। জানেন ভাইয়া কাঁদতে কাঁদতে ম্যাশ ভাইয়া জ্বর বাধিয়ে ফেলেছিলেন।

খুব ভেঙ্গে পড়া দলটাকে আপনিই শক্তি দিয়েছিলেন। আপনার জন্য পরেরদিন খেলতে নেমে ছিলো বাঘেরা। গুড়িয়ে দিয়েছিলো ভারতকে। শুধু সেইদিনই নয় পরের সব ম্যাচেই আহত বাঘের দাপট দেশে সবাই।

ভাইয়া জানেন আপনার জন্য খেলা সব ম্যাচেই রুপ পাল্টে যায় বাঘেদের। যেকোনো মূল্যে যে জয়টা আনতে হবে আপনার জন্য।

আজকে আপনার মৃত্যু বার্ষিকী তে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে অঘোষিত সেমিফাইনাল। ভাইয়া বলেন পারবে না জিততে ওরা? আপনার জন্যই তো আবার মাঠে নামবে ওরা। আপনি দিবেন তো অনুপ্রেরণা? জানেন তো আজকের জয়টা কতো জরুরি!

জানেন আপনি মারা যাওয়ার পরও আপনার সেই গুরু ডেভ হোয়াটমোর যখনই দেশে এসেছেন আপনার কবরে পাশে গিয়েছেন। দেখেনই তো সব। বুঝতে তো পারেনই কত ভালোবাসে সবাই আপনাকে।

ভাইয়া জানেন কি যদি ওপার থেকে ফিরিয়ে আনারকোনো প্রসেস থাকতো বাঙালিরা যেভাবেই হোক আপনাকে ফিরিয়ে আনতো। আপনার জন্যই তো বড় বড় জয়ের স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলো বাঙালীরা।

এখন আমরা অনেক ম্যাচ জিতি। কিন্তু আপনি থাকলে ব্যাপারটা অন্য রকম হতো না?

আপনার জার্সি নাম্বার টা আর কেউ পড়ে নি। যদি কোনোদিন পড়তে দেওয়া হয় লাখো বাঙালি রাজপথে নামবে। সবার একটা দাবি। আপনার সম্মানে যেনো জার্সি টা অবসরে রাখা হয়।

ভাইয়া আপনি যদি জানতেন আপনি চলে যাওয়ার পর সবার এই হাল হবে তবে কি সেদিন বের হতেন? হয়তো হতেন না? কোনভাবেই কি নিয়তি কে ঠেকানো যেতো না?

নিয়তি কে ঠেকানো যায়না তাই না ভাইয়া? মৃত্যু সময়ও টেস্টে অজেয় রেকর্ড করে গেলেন সবচেয়ে কম বয়সী ক্রিকেটার হিসেবে মৃত্যু বরণ করার। যা এখনো ভাঙ্গে নি। খুব দরকার ছিলো এই রেকর্ড টা করার?

যাইহোক, অনেক কিছু বলে ফেললাম, ভুল কিছু বলে থাকলে মাফ করে দিয়েন। ওপারে সবসময় ভালো থাকবেন ভাইয়া।

-ইতি
একজন টাইগারিয়ান

Most Popular

To Top