শিল্প ও সংস্কৃতি

বুক রিভিউঃ বাবুলের বেড়ে ওঠা

বুক রিভিউঃ বাবুলের বেড়ে ওঠা

বয়ঃসন্ধিকাল আমাদের টিনএজারদের জন্য এক বিভ্রান্তিকর সময়। শুধু আমাদের দেশে হবে কেন, পুরো বিশ্বজুড়েই এই বেড়ে ওঠার সময়টাকে বড় সমস্যা হিসাবে বিবেচনা করা হয়। এ সময়টাতে সদ্য কৈশোর পার হওয়া একজনের মনের ভেতর কী পরিবর্তন চলে তা এই উৎকর্ষতার যুগে এসেও আমরা পুরোপুরি জানি না।

সবাই এই সময়টার মধ্য দিয়ে যায় কিন্তু কোন এক অজানা কারণে আমরা আমাদের অভিজ্ঞতা দিয়ে পরবর্তী প্রজন্মকে খুব বেশি একটা সাহায্য করতে পারি না। বরং তাদের সন্দেহের চোখে দেখি। চোখের আড়াল করি না, উচ্ছন্নে যাওয়ার ভয়ে। তাদেরকে তাদের প্রাপ্য স্বাধীনতা দেই না। স্বাধীনতা বলতে এখানে জীবনযাপনের স্বাধীনতা না বুঝে ভাবনার স্বাধীনতা, চিন্তার স্বাধীনতা বুঝতে হবে। তাদের মত করে তাদের রূচি তৈরীর সুযোগ তাদের দেওয়া হয় না। নিজের পছন্দ চাপিয়ে দেই।

বর্তমান সময়ে এসব আমরা আরো বেশী করছি। এর মধ্যে যারা একটু ভাবতে শেখে, স্বতন্ত্র হতে চায় তাদের উপর আমাদের অত্যাচারের মাত্রা আরো বেড়ে যায়। যেমনটা আগেই বলেছি বয়ঃসন্ধিকাল অনেক বিভ্রান্তিকর সময়। সবসময় যেন ধোঁয়াশার চাদরে আচ্ছন্ন থাকে এই সময়টুকু। শৈশব কাটতে না কাটতেই জীবনের সাথে পরিচিত হতে হয়। নির্মমতার সাথে সখ্যতা হয়। সে আরো বিভ্রান্ত হয়। দুনিয়াটা তখন অস্পষ্ট লাগে। মনে হয় চারপাশের কেউ ভালবাসে না। কারো সাথে কোন সম্পর্ক নেই। নিজের সত্ত্বাকে তুচ্ছ মনে হয়।

সিরাজুল ইসলামের মূল পরিচয় প্রাবন্ধিক হলেও তিনটি উপন্যাস লিখেছেন। যার মধ্যে “বাবুলের বেড়ে ওঠা” একটি। কিশোর বয়সের মনোজগতের তাত্ত্বিক কোন বিশ্লেষণ খুঁজতে গেলে পাঠক হতাশ হবেন। বাবুলের বেড়ে ওঠা সহজ গদ্যে একটি কিশোরের জীবনের গল্প। উপন্যাসের কেন্দ্রীয় চরিত্র বাবুলের বড় হওয়ার ধাপগুলোর সাথে সাথে পাঠক প্রবেশ করবে এক কিশোরের মনোজগতে। যেখানে সে বার বার আস্থা হারায়, নায়কের পরাজয় দেখে।

সমাজের যাদের দেবতুল্য করা হয়, প্রশংসা করা হয় স্বাভাবিক ভাবেই সবাই ঠিক পথে হাঁটতে পারেন না। কেউ কেউ পথ হারিয়ে বিপথে চলে যায়। যে নৈতিকতার পথে সকলের প্রিয়পাত্র হয়ে ওঠে সেই পথটাই ভুলে যায়। তখন একটি সদ্যপ্রাপ্ত কিশোরের মনে কি চলে? তার জীবনের সঞ্চিত ভালমন্দ বিচার করার ক্ষমতা ধাক্কা খায়। কিংবা নতুন করে ভালমন্দ বিচার করতে শেখে। মমতাহীনতা কিভাবে টিনএজারদের বিভ্রান্ত করে? আগুন যেমন পোকাকে বিভ্রান্ত করে অনেকটা তেমন ভাবেই। পোকা আগুনের দিকে আকৃষ্ট হয় আর টিনএজাররা বাইরের জগতের প্রতি। সে বাইরের জগত তাকে শেখায়। নতুন বোধে তাকে গড়ে তোলে। উপলব্ধির বিস্তৃতি ঘটায়। যেখানে ভাল–মন্দ অভিজ্ঞতা বিবেচ্য নয়। শুধু অভিজ্ঞতাটুকুই বিবেচ্য।

বাবুলের বেড়ে ওঠা সময়ের গন্ডী পেরিয়ে যাওয়া মহৎ কোন সৃষ্টি নয়। এই উপন্যাসটিতে সময়কে ছাপিয়ে যাওয়ার থেকে সময়কে ধারণ করার চেষ্টা বেশী করা হয়েছে। এমন একটা সময়কে ধারণ করা হয়েছে যা ধ্রুবসত্য। প্রতিটি মানুষ সে সময় পার করে এসেছে। আগেই যেমনটা বলা হয়েছে এখানে কিশোর বয়সের মনোজগতের বিস্তারিত বিবরণ খুঁজতে গেলে হতাশ হতে হবে। কিন্তু খন্ড খন্ড ভাবাবেগ স্বয়ংক্রিয়ভাবে প্রবেশ করবে পাঠকের উপলব্ধিতে।

Most Popular

To Top