নাগরিক কথা

এই বর্ষণমুখর ঢাকা ছেড়ে কক্সবাজারে চিল করতে যায় কোন পাগল!

neon aloy ঢাকা চিল নিয়ন আলোয়

পৃথিবীর দ্বিতীয় বৃহত্তম সমুদ্র সৈকতের খুব কাছাকাছি বাসা হওয়াতে সবসময় একটা গর্ববোধ কাজ করত। আজ ভরা শ্রাবণে সৈকতের পানি বাসার নীচে এসে পড়েছে বলে এলাকাবাসীর আনন্দের সীমা নেই। গৃহিণীরা চুলোয় খিচুড়ি চড়িয়ে দিয়েছেন। আরেক চুলোয় বেগুন ভাজতে ভাজতে স্বামীকে ফোন দিয়ে বলছেন, “ওগো আজকে তাড়াতাড়ি এসো, তোমার প্রিয় পাতলা খিচুড়ি রান্না হচ্ছে।” স্বামী ওপাশ থেকে বলছেন, “রাখো তোমার খিচুড়ি। তাড়াতাড়ি মৌচাক মোড়ে চলে আসো। আমরা প্যারাসেইলিং করবো। এই ওয়েদারে প্যারাসেইলিং! উফ! কী রোমাঞ্চকর! মালিবাগ থেকে আসতে ৫ ঘন্টার বেশি লাগার কথা না। তুমি আসো আমি অপেক্ষা করছি।”

মন্টু তার মাকে বলছে, “মা সবাই ফ্লাইওভারের নীচে চিল করতে যাচ্ছে, আমি যাই?”
“না বললে তো আবার দুপুরে ভাত খাওয়া বন্ধ করে দিবি। আলমারিতে লাইফ জ্যাকেট আছে, সেটা নিয়ে বিদেয় হ।”

শান্তিনগরের ছেলে এরফানের খুব শখ ছিল ২৬ জুলাই তাদের ১৫ দিনের অ্যানিভার্সারিতে গার্লফ্রেণ্ড মিমিকে (সিদ্ধেশ্বরীর হটশট) খুবই এক্সপেন্সিভ একটা ডেট এ নিয়ে যাবে। সে একটা নৌকা ভাড়া করে ফেললো। মিমির দিকে তাকিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে বলল, “তোমাকে ভেনিস নিয়ে যেতে না পারলেও, শান্তিনগর বীচের আকাশ, ড্রেনের পানিকে সাক্ষী রেখে বলতে চাই…” কথা শেষ করবার আগেই বন্ধু পরিবহন পাশ দিয়ে চলে যাওয়ায় পানির ঝাপ্টায় মিমির মুখের দু’নম্বর মেকআপ গলে আসল চেহারা বেড়িয়ে পড়ল!

রামপুরার মানুষ আজ আনন্দ প্রকাশের ভাষা খুজে পাচ্ছেন না! রামপুরা টু হাতিরঝিল কায়াক প্রতিযোগিতা চলছে। সবাই অফিস যাওয়া বাদ দিয়ে মনের সুখে কায়াকিং করছেন। কেউ কেউ আবার খুব সিরিয়াস। অফিস কামাই দেওয়া যাবেই না। তারা কায়াকিং পার্টিদের বলছেন, “ব্রাদার, গুলশান পর্যন্ত একটু লিফট দেওয়া যাবে?” কায়াকিং পার্টি চোখ গরম করে বলছেন, “এই আপনাদের জন্যই স্বাধীন দেশে থেকেও আমরা পরাধীন। ইংরেজরা দু’শো বছর পাছায় লাথি দিয়েছে, তারপর দিয়েছে পাকিস্তান, আর আজ যখন আমরা স্বাধীন আপনি এখনও অন্যের অধীনে কাজের জন্য ছুটছেন! ভাই জীবনটাকে উপভোগ করতে শিখুন! উচ্চমার্গের কথা চলতে থাকে…

বাড্ডায় এখন দেশ-বিদেশ থেকে আসা মানুষের উপচে পড়া ভীড়। সবাই বলছে ট্র্যাফিক জ্যাম। ঘটনা ভিন্ন। রাস্তা কেটে ফেলার জন্যে উচু-নীচু চোখা পাথর, বৃষ্টির পানি, ড্রেনের ঘন কালো পদার্থ, বাস থেকে তৈরী হওয়া কৃত্রিম স্রোত, বাড্ডাকে কোরাল আইল্যাণ্ডে পরিণত করেছে। সেন্টমার্টিনের পর এতো সুন্দর, প্রাকৃতিক কোরাল আইল্যান্ড বাংলাদেশে এই প্রথম। দালানের ভীড়ে প্রকৃতির এমন সৃষ্টি কল্পনাতীত। খবর পেয়েই দূরদূরান্ত থেকে ছুটে আসছে ভ্রমণপিপাসু মানুষ। জনপ্রিয় ট্র্যাভেলিং গ্রুপগুলোতে একের পর এক পোস্ট আসছে, “একশ টাকায় ঘুরে এলাম বাড্ডামারটিন থেকে”, “বাড্ডামারটিনে সমুদ্রবিলাস মাত্র ৮০ টাকায়”!

এদিকে মালদ্বীপ বাংলাদেশিদের জন্য ভিসা বাতিল করে দিয়েছে। তিন দিনের টানা বৃষ্টিতে বসুন্ধরার স্বর্গীয় রূপ বেড়িয়ে পড়েছে। পৃথিবীর নানা প্রান্ত থেকে নবদম্পতিরা হানিমুনের জন্য ভীড় জমিয়েছে বসুন্ধরা গেটে। হোটেলের মালিকেরা হিমশিম খাচ্ছেন। হঠাৎ করে মালদ্বীপের ভ্রমণখাতে ধ্বস নেমেছে। আর তার কারণ হল এই রূপকুমারী বসুন্ধরা। সবাই বলছে মালদ্বীপ থেকে বসুন্ধরার কালো ড্রেনের পানি বেশি স্বচ্ছ এবং সুরভিত। প্রতিবাদ জানাতে বাংলাদেশিদের ভিসা বাতিল করেছে মালদ্বীপ। কি হিংসুটে জাতিরে বাবা! ভাই, তোমাদের আছে শুধু পানি। আর কি আছে হ্যা? আমদের যমুনা ফিউচার পার্ক আছে, অ্যাপোলো হাসপাতাল আছে, আমাদের রাস্তায় একই সাথে রিকশা, নৌকা, জাহাজ, গাড়ী, সাবমেরিন, বাস, প্লেন চলতে পারে। চুলডা আছে তোমাদের!

[রাফিউন নবী‘র ফেসবুক স্ট্যাটাস থেকে লেখকের অনুমতিক্রমে প্রকাশিত]

Most Popular

আর দশটি নিউজপোর্টালের মত যাচ্ছেতাই জগাখিচুড়ি না, "নিয়ন আলোয়" আমাদের সবার লেখা নিয়ে আমাদের জন্যই প্রকাশিত হওয়া বাংলা ভাষায় প্রথম পূর্ণাঙ্গ অনলাইন ম্যাগাজিন।

আজকের আলোচিত

Copyright © 2016 Neon Aloy Magazine

To Top