লাইফস্টাইল

যে সিনেমাগুলো নতুন করে জীবনকে ভালবাসতে শিখায়!

সিনেমা জীবন ভালবাসা নিয়ন আলোয় neon aloy

ভালোবাসা জিনিসটা হঠাৎ করে তীব্র বেগে ছুটে আসা বিশাল একটা ঢেউয়ের মতো, কিছু বুঝে উঠার আগেই তুমি জলের নীচে তলিয়ে যাবে। এখন সিদ্বান্ত তোমার- জলে তলিয়ে গিয়ে হারিয়ে যাবে নাকি খড়-কুটো, কাঠের টুকরো যা’ই হাতের কাছে পাও সেটাকে আকড়ে ধরে বাঁচার চেষ্টা করবে, মাথা তুলে চারপাশের জগতটা দেখার চেষ্টা করবে, ভয়ংকর মুহূর্ত থেকেও নিজের সেরাটা বের করে এনে বাঁচার আনন্দ উপভোগ করবে!

সিনেমা জীবন ভালবাসা নিয়ন আলোয় neon aloyLa La Land‘ মুভিতে মিয়া রাস্তা দিয়ে হেঁটে ঘরে ফিরতে ফিরতে হঠাৎ পিয়ানো শুনে একেবারেই একটা আনকোরা ক্লাবে ঢুকে পড়েছিলো। সেখানে ঢুকতেই সেবাস্টিয়ানের পিয়ানো শুনবার সময় মিয়ার চোখে-মুখে মুগ্ধতা’টা দেখো। বাজানো শেষে সেবাস্টিয়ান মিয়াকে ধাক্কা মেরে বের হয়ে যাবার পরেও মিয়ার মুগ্ধতাটা এক বিন্দুও কমেনি! সেই একই মুগ্ধতা ছিলো সিনেমার শেষ দৃশ্যে সেবাস্টিয়ানকে আবার বাজাতে দেখার মধ্যেও। দুজন কখনো এক হবে না জেনেও সেবাস্টিয়ানের চোখে চোখ রেখে মিয়া বলেছিলো, “Damn.. I’ll Always Love You!” সেবাস্টিয়ান প্রত্যুত্তরে বলেছিলো, “I’ll Always Love You Too…”

ভালোবাসা ছিলো ‘Me Before You‘ তে ল্যুইজার সংগ্রামে। শুধুমাত্র কেয়ারটেকিং নার্স হিসেবে এসে পঙ্গু উইলিয়ামের ব্যক্তিত্বকে ভালোবেসে উইলিয়ামকে এই পৃথিবী আবার ভালো লাগানোর জন্য রীতিমত যুদ্ধ করেছিলো ল্যুইজা। উইলিয়াম সুইজারল্যান্ডে আত্মহত্যা করার পর ল্যুইজার জন্যে যে চিঠিটা লিখে যায়, সেই চিঠির শেষ লাইনটা ছিলো, ‘Just Live Well, Just Live!”

ভালোবাসা তোমার নিজের আঁকড়ে রাখা পুরোনো জগতটাকে কিভাবে উলটপালট করে নতুন রূপ দিতে পারে, সেটা তুমি দেখবে ‘The Girl Next Door‘ মুভির সেই দৃশ্যে, যখন ম্যাথ্যু আর ড্যানিয়েল গভীর রাতে লুকিয়ে একটি বাড়ির সুইমিং পুলে সাঁতার কাটতে নেমে যায় এবং পরক্ষণেই ম্যাথ্যু আবিষ্কার করে এটি তার প্রিন্সিপালের বাড়ি। তখন ড্যানিয়েল ম্যাথ্যুর চোখে চোখ রেখে বলেছিলো, “Don’t Worry, Just Go With It.” কিশোর ম্যাথ্যু তখনই সম্ভবত প্রথমবারের মত সমস্ত পৃথিবীকে ভুলে গিয়ে জীবনের অসাধারণ মুহূর্তগুলোকে উপভোগ করতে শিখেছিলো। প্রিন্সিপালের বাড়ি দেখে ভয়ে পালিয়ে গেলে যে মুহূর্তটা কখনোই তার হাতে ধরা দিতো না।

সিনেমা জীবন ভালবাসা নিয়ন আলোয় neon aloy

The Girl Next Door মুভির সুইমিং পুলের সেই দৃশ্যে ড্যানিয়েল চরিত্রে অভিনয় করা এলিশা কাঠবার্ট।

তুমি ভালোবাসা দেখবে, ‘The Fault in Our Stars‘ মুভিতে। যেখানে নায়ক-নায়িকা দুজনে’ই জানতো তাদের জীবনে আর বেশিদিন বাকি নেই, তবুও তারা একজন অন্যজনের হাত ধরে চলে গিয়েছিলো আমস্টারডাম। ব্ল্যাক টাক্সিডোয় অগাস্টাস, এবং আকাশী নীল ড্রেসে হ্যাজেল যখন আমস্টারডামে নৌকায় হাত ধরে অবাক চোখে আমস্টারডাম দেখছিলো, তারা কি একবারের জন্যেও ভেবেছিলো হুট করে যেকোন দিন শেষ হয়ে যেতে পারে তাদের জীবন?

ভালোবাসা মানে শুধুই তুমি আর আমি নয়। আমি-তুমি’র স্বপ্নের মাঝে আসে ‘আমরা’। তোমার চোখের সামনে আদুরে কোন শিশুকে দেখে তুমি যদি মনে মনে তোমার প্রেমিক বা প্রেমিকাকে নিয়ে সংসারের স্বপ্ন না দেখো… তবে খাদ রয়ে গেছে ভালোবাসায়।

সিনেমা জীবন ভালবাসা নিয়ন আলোয় neon aloy

স্ত্রী-সন্তানসহ জেমস ব্র্যাডক, যার জীবনের সত্যিকার ঘটনা নিয়ে নির্মিত হয়েছে “সিন্ডারেলা ম্যান” চলচ্চিত্রটি

সংসারের জন্যে, সন্তানদের জন্যে ভালোবাসা তুমি দেখবে ‘Cinderella Man‘ মুভিতে। সত্য ঘটনা নিয়ে বানানো এই মুভিতে জেমস ব্র্যাডক যখন নিজের জীবন বাজি রেখে সেই সময়কার সবচেয়ে খুনে বক্সারের সাথে বক্সিং ম্যাচে লড়তে গিয়েছিলেন হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়নশিপের জন্যে, সেই ম্যাচে তিনি খেলতে নেমেছিলেন তার সন্তানদের জন্যে। তার বাসায় হিটার নষ্ট ছিলো, প্রচন্ড শীতে অসুস্থ হয়ে পড়েছিলো বাচ্চারা। বাচ্চাদের নিজের কাছ থেকে দূরে পাঠাতে হবে এই ভয়ে তিনি জীবন বাজি রেখেছিলেন। ঘরে খাবার কিছু ছিলো না বলে সেই ভয়ংকর ম্যাচে খেলতে নেমেছিলেন খালি পেটে। জেমস ব্র্যাডক কিন্তু ম্যাচটা জিতেই বক্সিং রিঙ ছেড়েছিলেন সেদিন।’

Life is Beautiful‘ মুভিতে ইহুদি নায়ক তার নায়িকার পরিবারের অমতে বিয়ে করেছিলো নায়িকাকে। বিয়ের পরে তাদের পরিবারে আসে ফুটফুটে এক পুত্র সন্তান। একদিন নাৎসি বাহিনী এসে পিতা-পুত্রকে ধরে ক্যাম্পে নিয়ে যায়। বাবা জানতেন, একদিন ঠিকই তাকে এবং তার পুত্রসন্তানকে হত্যা করা হবে। তবুও তিনি ছোট্ট শিশুপুত্রকে বুঝতে দেন নি আশেপাশে কি হচ্ছে। সন্তানকে বলেছিলেন, এটি একটি গেম শো’র অংশ। যারা জিতবে, তারা পাবে একটি ট্যাঙ্ক। পুত্র সে ট্যাঙ্ক পাবার আশায় বাবার সব কথা শুনতো, বাবার কথা মতো লুকিয়ে থাকতো রুমের উপরে কার্নিশে। বাবা সত্যি সত্যি তার পুত্রকে বাঁচিয়েছিলেন, ফিরিয়ে দিয়েছিলেন মা’র কাছে নিজের জীবনের বিনিময়ে।

Forrest Gump‘ এর ফরেস্ট একদিন সাহস করে জেনীকে বলেছিলো, “Will You Marry Me Jenny?” উত্তরে জেনী না বলেছিলো। ফরেস্ট তখন ভয়ংকর কষ্ট পেয়ে জেনীকে বললো, “Jenny, I Might Not be a Smart Man. But I Know What Love is..”
সেই জেনী’ই ফরেস্ট থেকে অনেক দূরে চলে গিয়ে একা বড় করতে থাকলো ফরেস্টের সন্তানকে। জেনীকে কয়েক বছর পর দেখতে গিয়ে ফরেস্ট যখন নিজের সন্তানকে প্রথম দেখলো তখন বুদ্ধি প্রতিবন্ধী ফরেস্টও নিজের অজান্তে বলে উঠলো, “He’s The Most Beautiful Thing I’ve Ever Seen!”

প্রচন্ড অদ্ভূত রকমের এক ভালোবাসা তুমি দেখবে ‘কাল হো না হো‘ মুভিতে। যখন শাহ্‌রুখ বুঝতে পেরেছিলো সে মারা যাচ্ছে। প্রীতিকে পাগলের মতো ভালোবেসেও সারাজীবনের জন্যে কষ্টে না ফেলার চেষ্টায় অন্যের হাতে তুলে দিয়েছিলো সে। তুমি ভালোবাসার ক্ষমতা দেখবে সেই সাদা লেখাহীন ডায়েরী প্রীতিকে পড়ে শোনানোর দৃশ্যে, অবাক হবে তুমি!

সিনেমা জীবন ভালবাসা নিয়ন আলোয় neon aloy

সবাই বলবে, সত্যিকারের ভালোবাসা এত সুন্দর না, এসব শুধু মুভিতেই সম্ভব। একবার ভেবে দেখো তো, তোমার ভালোবাসার জন্যে তুমি সাত-পাঁচ না ভেবে কখনো এমন কোন কান্ড কি করে বসোনি যেটা মুভিকেও হার মানায়? যে গল্পটা শুধু মাত্র তুমি এবং তোমার ভালোবাসার মানুষ জানে।

আমি, তুমি, আমরা সাধারণ। আমাদের ভালোবাসাবাসির গল্পগুলো নিতান্তই আমাদের ব্যক্তিগত বলেই আমাদের ভালোবাসা অসাধারণ। চাইলেই আমাদের ভালোবাসা হতে পারবে বেস্টসেলিং কোন উপন্যাস অথবা ইতিহাস গড়া চলচ্চিত্র।

So, Go on and fall in love with the person, whom you want right by you to hold your hand when you think you’re gonna drown.

Most Popular

আর দশটি নিউজপোর্টালের মত যাচ্ছেতাই জগাখিচুড়ি না, "নিয়ন আলোয়" আমাদের সবার লেখা নিয়ে আমাদের জন্যই প্রকাশিত হওয়া বাংলা ভাষায় প্রথম পূর্ণাঙ্গ অনলাইন ম্যাগাজিন।

আজকের আলোচিত

Copyright © 2016 Neon Aloy Magazine

To Top