নাগরিক কথা

ভাটি অঞ্চলকে দুর্গত এলাকা হিসাবে ঘোষণা করা হোক

ভাটি অঞ্চল দুর্গত নিয়ন আলোয় neon aloy

যেই ধান আর মাছ সুনামগঞ্জের প্রাণ, সেই ধান আর মাছতো গেলই, এখন হাওর পাড়ের জনপদই বিনষ্ট হবার পথে।

হাওর ভর্তি সবুজ ধান। এই সবুজ ধানে শীষ আসবে, সোনালী হবে। হাওড় পাড়ের দুইকোটি মানুষের জীবন এবং সংস্কৃতি এই ধানকেন্দ্রিক। কিন্তু এই বছর! ধানে শীষ আসার আগেই পানিতে তলিয়ে গেছে হাওর ভর্তি সবুজ ধান। সুনামগঞ্জ, কিশোরগঞ্জ, নেত্রকোনা, হবিগঞ্জের সবগুলো হাওর।

এখন কাঁচা ধানগাছ পঁচে হাওরের পানিতে দুর্গন্ধ। তীব্র গন্ধে বাতাস বিষাক্ত। হাওর পাড়ের মানুষ এমন দুর্গন্ধের সাথে এর আগে কখনও পরিচিত ছিল না।

এর সাথে যুক্ত হয়েছে মরা মাছের গন্ধ। চারদিকে ভেসে উঠেছে ছোট-বড় মরা মাছ। এই বছরের মত এত ভয়াবহ না হলেও সুনামগঞ্জের হাওরডুবি কম-বেশি প্রতি বছরেই হয়ে থাকে। মাছ মরে যাবার এমন ঘটনা আমি গত ৩০ বছরে শুনেছি বলে মনে করতে পারছি না।

ভাটি অঞ্চল দুর্গত নিয়ন আলোয় neon aloy

বানের পানিতে ভেসে উঠছে মৃত মাছ, স্মরণকালের ইতিহাসে ভাটি অঞ্চলের মানুষ যে দৃশ্য আগে দেখেনি কখনো!

ধারণা করা হচ্ছে – উজানের ভারতে ইউরেনিয়াম খনি থেকে কিছু বিষাক্ত পদার্থ সরাসরি সুনামগঞ্জের হাওরের পানিতে এসে মিশেছে। এখানে বলে রাখা ভালো মেঘালয় পাহাড়ের ঠিক নিচেই সুনামগঞ্জের সব হাওর। বিখ্যাত টাঙ্গুয়ার হাওরের মধ্যে একটি।

হাওর পাড়ে মানুষদের আরেকটি আয়ের উৎস হাঁসের খামার। প্রতিটি খামারে হাজার-হাজার হাঁস। বিশাল হাওর আর বিলই এসব হাঁসের চারণভূমি। হাওরের বিষাক্ত পানি খামারের সব হাঁসও শেষ করে দিচ্ছে। সব হাঁস মরে ভেসে উঠছে।

বৈশাখের শেষে যেখানে ফুটবল খেলার উৎসব হতো, বাউল গান হতো, আম-কাঠালিতে নাইওরী আসতো – সেখানে আজ শুধু হাহাকার। উগার (গোলা) শূন্য কৃষক। ধানহীন। গোয়ালের গরুগুলো বাঁচানোর জন্যও একমুঠো খড় নেই। চারদিকে শুধু নাই আর নাই। কৃষককে পানির দরে বিক্রি করতে হচ্ছে তাদের প্রিয় গরুগুলো।

পুরো জনপদে খাদ্যের মজুদ শূন্য। সামনে পুরো একটি বছর। এর মধ্যে ধানগাছের পঁচা গন্ধ, মাছের পঁচা গন্ধ, হাঁস মরার পঁচা গন্ধ – হাওর পাড়ের মানুষ বাঁচবে কীভাবে? ইউরেনিয়াম মাইনের কথা যদি সত্যি হয় তাহলে হাওর পাড়ের গ্রামের পর গ্রাম মানুষ শূন্য হতে বেশি সময় লাগবে না।

পাদটীকা
১। দায়িত্বে থাকা মন্ত্রণালয়ের মাথামোটা সচিব বলেছেন সুনামগঞ্জকে এখনও দুর্গত এলাকা হিসাবে ঘোষণা দেবার মত কিছু হয় নাই।
সচিব সাহেব, কতজন মানুষ মরলে দুর্গত এলাকা হয় সেটা যদি আপনি আপনার মন্ত্রণালয়ের প্রণিত নিয়মে একটু সহজ করে বুঝিয়ে দিতেন তাহলে আমরা খুব কৃতার্থ হাতাম! আপনাকে বলি, হাওর পাড়ে আসুন। উৎকট দুর্গন্ধে দুর্গত এলাকা কাকে বলে উদাহরণ সহ বুঝে যাবেন।

২। সুরমা, কুশিয়ারা এবং অন্যান্য ছোট-বড় অনেক নদীর মাধ্যমে সুনামগঞ্জের হাওরের সাথে বাংলাদেশের অন্যান্য অঞ্চলও কিন্তু সংযুক্ত। সুতরাং রেডিওঅ্যাকটিভ ইউরেনিয়ামে শুধু সুনামগঞ্জের মানুষ মরবে, বিকলাঙ্গ হবে, ডিজেবল হবে তা কিন্তু না। ইউরেনিয়ামের ব্যাপারটি নিয়ে সরকারকে এখনই ব্যাবস্থা নিতে হবে।

ছবিগুলো রমাপ্রসাদ বাবু‘র ফেসবুক টাইমলাইন থেকে নেওয়া।

Most Popular

আর দশটি নিউজপোর্টালের মত যাচ্ছেতাই জগাখিচুড়ি না, "নিয়ন আলোয়" আমাদের সবার লেখা নিয়ে আমাদের জন্যই প্রকাশিত হওয়া বাংলা ভাষায় প্রথম পূর্ণাঙ্গ অনলাইন ম্যাগাজিন।

আজকের আলোচিত

Copyright © 2016 Neon Aloy Magazine

To Top