ইতিহাস

কসমিক রে এবং একটি ৪,৬০০ বছর পুরনো পিরামিড

আপনি হয়তো অনেকবার অবাক হয়েছেন একটি পিরামিডের ভিতর দেখতে ঠিক কেমন হয় তা নিয়ে।  মুভিতে যেমন দেখায় তেমন নাকি অন্য রকম। পিরামিডের আসল গঠন দেখতে কেমন এবং কিভাবে তা এত দীর্ঘ সময় টিকে থাকার উপযোগী করে তৈরি করা হয়েছে।

প্রাচীন মিশরের পিরামিড মূলত ৪,৫০০ বছরের পুরনো। কালের পরীক্ষায় এত দীর্ঘ সময় ধরে সুমহান শ্রেষ্ঠত্ব ধরে রেখেছে মিশরের পিরামিড।এখন আমরা কসমিক রশ্মি ব্যবহার করে পিরামিড সম্পর্কে আরো বেশি ধারনা নিতে পারি। নতুন “স্ক্যান পিরামিড” প্রকল্পে কসমিক রশ্মি ব্যবহার করা হচ্ছে মিশরীয় এই আকর্ষণের “ভিতরের মানচিত্র” তৈরী করতে।

এই ছবিতে “বেন্ট পিরামিড” নামে পরিচিত ৪,৬০০ বছর পুরনো একটি পিরামিডের অভ্যন্তরীণ বাঁকানো চেম্বার দেখা যাচ্ছে, যা একটি ৩৪৫ ফুট লম্বা স্মৃতিস্তম্ভ এবং কায়রোর ২৫ মেইল দক্ষিণে অবস্থিত.

3-d-cutaway-of-bent-pyramid-160427

প্রাচীন কালে, এই স্তম্ভটি “দক্ষিনের উজ্জ্বল পিরামিড” নামে পরিচিত ছিল. এটাকে মিসরের প্রথমদিকের ডিজাইনের অংশ হিসেবে বিশ্বাস করা হয়। এটা সম্ভবত সেই ট্রানজিশন পিরিয়ডের সময়কার যখন ইঞ্জিনিয়ারিং, সিঁড়িযুক্ত পিরামিড থেকে মসৃণ পিরামিডের দিকে এগোচ্ছে।

কসমিক রশ্মি ব্যবহার করা হয় যেকোনো কাঠামোর এর গোপন অংশ প্রকাশে, এই রশ্মিকে অনেকটা এক্স-রের সঙ্গে তুলনা করা যেতে পারে। বিজ্ঞানীরা মহাজাগতিক রশ্মি থেকে আসা মিউয়ন কণা ব্যবহার করছেন পাথর সবচেয়ে গভীরে প্রবেশের জন্য।

এই পদ্ধতি ব্যবহার করে, গবেষকরা ভবনটির অভ্যন্তরীণ পাথুরে অংশের পুরুত্ত পরিমাপ করতে পেরেছেন। পরীক্ষাটির সঠিক ফলাফল পেতে প্রায় ৪০ দিনের এক্সপোজারের প্রয়োজন হয়।এখন সেই সকল ছবি পাওয়া যাচ্ছে যা এই ভবনটির সুক্ষ কারিগরি প্রকাশ করছে।

এখন তো কেবল শুরু, আরো প্রচুর পিরামিডের রহস্য উন্মোচন হওয়া বাকি।

তথ্যসূত্রঃ বিজনেস ইনসাইডার, আল্পফার

Most Popular

আর দশটি নিউজপোর্টালের মত যাচ্ছেতাই জগাখিচুড়ি না, "নিয়ন আলোয়" আমাদের সবার লেখা নিয়ে আমাদের জন্যই প্রকাশিত হওয়া বাংলা ভাষায় প্রথম পূর্ণাঙ্গ অনলাইন ম্যাগাজিন।

আজকের আলোচিত

Copyright © 2016 Neon Aloy Magazine

To Top